ক্রিকেটের এই ৯টি রেকর্ড কি আজীবন অক্ষত থাকবে?

  • 🎬 Video
  • ℹ️ Description
Invalid campaign token '7mSKfTYh8S4wP2GW'
ক্রিকেটের এই ৯টি রেকর্ড কি আজীবন অক্ষত থাকবে? 4.5

যেমন স্যার ডন ব্রাডম্যানের ব্যাটিং গড় ৯৯.৯৪ রেকর্ডটি । এমনি আরও ৮টি রেকর্ড আছে। তো বন্ধুরা এক নজরে দেখে নেওয়া যাক সেই রেকর্ডগুলোকেই –

১. ব্র্যাডম্যানের গড় ৯৯.৯৪-

অসাধারণ একটি রেকর্ড। কেউ কখনও স্বপ্নেও ভাববে না রেকর্ডটিকে ভাঙার কথা। প্রথমে অনেক ব্যাটসম্যান এসেই পৃথিবীর বুকে কাপন ধরিয়ে দেয়। শুরুতে দেখা যায় গড় তার কাছাকাছি। কিন্তু বেলা গড়ালে তারাও হারিয়ে যায়। ৭-৮ ম্যাচ গড় ভাল হলেও ১৫-২০ ম্যাচ পর গড় নেমে যেতে থাকে। সাধারণত ৫০-৬০ এর উপরে কারো গড় থাকে না। কিন্তু ৫২ টা ম্যাচ খেলার পরও স্যার ডন ব্র্যাডম্যান এর গড় ছিল ৯৯.৯৪। এই রেকর্ড ভাঙার কথা নিশ্চয়ই কেও চিন্তা করবে না। স্যার ডন ব্র্যাডম্যান ৫২ ম্যাচ খেলে ৮০ ইনিংসে ৬৯৯৬ রান করেন যেখানে তার সর্বোচ্চ রান ছিল ৩৩৪ আর ব্যাটিং গড় ছিল ৯৯.৯৪ ।

২. শচীনের ১০০ টি শতরান-
শতরানের শতরান। প্রথম সম্ভব করে দেখিয়েছেন শচীন টেন্ডুলকার। আর হয়তো কেও করে দেখাতে পারবেন না। অনেকেই আমার সাথে দ্বিমত পোষণ করবেন। অনেকের ধারণা বিরাট কোহলী এই রেকর্ড ভেঙে ফেলবেন। কিন্তু কথায় আছে,”যত গর্জে, তত বর্ষে না।” যতটা মনে হচ্ছে ততটা সম্ভব না। ৩১ আগস্ট ২০১৮ পর্যন্ত তার সেঞ্চুরি সংখ্যা ৫৮। আরো ৪২ টা সেঞ্চুরি লাগবে। যা অনেক দূরের পথ। সেজন্য সেই হিসেবে বলা চলে, টেন্ডুলকারের রেকর্ড অক্ষতই থাকবে। কারণ, “দিল্লী এখনো অনেক দূর।”

৩. মুরালির উইকেট-
টেস্টে ৮০০, ওয়ানডেতে ৫৩৪, টি-২০ তে ১৩ উইকেট আছে শ্রীলংকার মুরালিধরনের। মোট ১৩৪৭ উইকেট। সংখ্যাটাই অনেক বড়। কতটা পথ পেরোলে মুরালির রেকর্ড ভাঙা যাবে সেটা হয়তো কোন বোলার এখনো জানে না। আর জানার কথাও নয়।
সর্বোচ্চ উইকেট সংগ্রাহক ৫ বোলার-
১. মুত্তিয়া মুরালিধরণ- ১৩৪৭
২. শেন ওয়ার্ন- ১০০১
৩. অনিল কুম্বলে- ৯৫৬
৪. গ্লেন ম্যাকগ্রা- ৯৪৯
৫. ওয়াসিম আকরাম- ৯১৬
সেরা ৫ এর তালিকায় নেই এখনকার কোন বোলার। অবসর নেয়নি এমন বোলার আছে তালিকার ৭ নাম্বারে। তিনি জেমস এন্ডারসন। ৩১ আগস্ট ২০১৮ পর্যন্ত তার উইকেট সংখ্যা ৮৪৪ । মুত্তিয়া মুরালিধরণকে ছুতে যে এন্ডারসনকে বেগ পেতে হবে তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না। আর একটু গভীরভাবে চিন্তা করলেই বুঝতে পারবেন যে, মুরালির রেকর্ড যে অক্ষতই থাকবে তার পক্ষেই এখনো কথা বলে পরিসংখ্যান।

৪. ব্রায়ান লারার ৪০০* –
একটি টেস্ট ম্যাচে তো অহরহ দ্বিশতক দেখতে পাওয়া যায়। ত্রিশতকও রয়েছে ২৮ টি। কিন্তু চার শতক এর কথা কি কেও চিন্তা করেছিলেন? হ্যা, সেটাই করে দেখিয়েছেন ব্রায়ান লারা। যদিও রেকর্ড ভাঙা গড়ার খেলা ক্রিকেট। তবুও লারার এই কীর্তি যে চিরস্মরণীয় হয়ে থাকবে তা বোঝাই যাচ্ছে।
ক্রিকেট ইতিহাসের সর্বোচ্চ রানের ৫টি ইনিংস-
১. ব্রায়ান লারা ৪০০*
২. ম্যাথু হেইডেন ৩৮০
৩. ব্রায়ান লারা ৩৭৫
৪. মাহেলা জয়াবর্ধনে ৩৭৪
৫. গ্যারি সোবার্স ৩৬৫

৫. এক টেস্টে ১৯ উইকেট-
এক টেস্টের দুই ইনিংস মিলিয়ে ২০টা উইকেট নেয়া যায়। ১৯৫৬ সালে মানচেস্টার টেস্টে অসিদের বিরুদ্ধে ইংল্যান্ডের জিম লেকার নিয়েছিলেন ১৯ উইকেট। প্রথম ইনিংসে ৯টা, দ্বিতীয় ইনিংসে দশে দশ। দুটো মিলিয়ে ১৯। আজ পর্যন্ত কেউ পারেননি, হয়তো কেউ পারবেনও না।

৬. গ্রায়েম স্মিথের ১০৯টা টেস্টে নেতৃত্ব দেয়া-
মাত্র আট টেস্ট খেলার পর দেশের অধিনায়কত্ব করার সুযোগ পেয়েছিলেন গ্রায়েম স্মিথ। বাঁহাতি ওপেনার এই স্মিথ এর পর দেশকে টানা ১০৮টি টেস্টে নেতৃত্ব দেন। আর একটি টেস্ট আইসিসি একাদশের নেতৃত্ব দিয়েছেন। স্মিথ খেলেছেন ১১৭টি টেস্ট, নেতৃত্ব দিয়েছেন ১০৯টাতে। এই বিরল রেকর্ড ভাঙা কঠিন।
টেস্ট ক্রিকেটে সর্বোচ্চ নেতৃত্ব-
১. গ্রায়েম স্মিথ- ১০৯ ম্যাচ
২. এল্যান বর্ডার- ৯৩ ম্যাচ
৩. স্টিভেন ফ্লেমিং- ৮০ ম্যাচ
৪. রিকি পন্টিং- ৭৭ ম্যাচ
৫. ক্লাভিড লয়েড- ৭৪ ম্যাচ

গ্রায়েম স্মিথের এই রেকর্ড ভাঙতে যে কেও পারবে না তা পরিসংখ্যানই বলে দিচ্ছে।

৭. দ্রাবিড়ের ২১০ ক্যাচ-
১৬৪টি টেস্ট খেলে রাহুল দ্রাবিড় ধরেছেন ২১০টি ক্যাচ। টেস্টে প্রতি ইনিংসএ তার ক্যাচ ধরার সংখ্যা ০.৬৯৭টি। কোনো দিন দেশের হয়ে টেস্টে উইকেটকিপিং না করেও এই রেকর্ড করে রাখা দ্রাবিড়কে ভাঙা যাবে না মনে হয়।
টেস্ট ক্যারিয়ারে সর্বোচ্চ ক্যাচ-
১. রাহুল দ্রাবিড়- ২১০
২. রিকি পন্টিং- ১৯৬
৩. মাহেলা জয়াবর্ধনে- ১৯৪
৪. জ্যাক ক্যালিস- ১৯৪

৮ নম্বরে গেলে খুজে পাওয়া যাবে রস টেইলর কে। যার ক্যাচ সংখ্যা মাত্র ১৫৭। দ্রাবিড়ের রেকর্ড যে অক্ষত থাকবে তা বোঝাই যাচ্ছে।

৮. গ্রাহাম গুচের এক টেস্টে ৪৫৬ রান-
একটা টেস্ট একজন ব্যাটসম্যান করলেন ৪৫৬ রান। হ্যাঁ, ভারতের বিরুদ্ধে লর্ডসে ১৯৯০ সালে গ্রাহাম গুচ এমন কাণ্ডই ঘটান। গুচ প্রথম ইনিংসে করেন ৩৩৩ রান, দ্বিতীয়টাতে ১২৩ রান। ইংল্যান্ড এই টেস্টে জেতে ২৪৭ রানে। l
এক টেস্টে সর্বোচ্চ রান-
১. গ্রাহাম গুচ- ৪৫৬
২. মার্ক টেইলর- ৪২৬
৩. কুমার সাঙ্গাকারা-৪২৪
৪. ব্রায়ান লারা- ৪০০
৫. গ্যারি চ্যাপেল- ৩৮০

৯. ৫২ বছর বয়সে টেস্ট খেলা-
ক্রিকেট একটি ফিটনেস ভিত্তিক খেলা। বয়স বাড়ার সাথে সাথেই ফিটনেস কমতে থাকে এবং অবসরের কথা শোনা যায়। ৩২, ৩৪ বছরে এসেই আজকাল অবসরের ঘণ্টা বেজে ওঠে। আর উইলফ্রেড রোডস ৫২ বছর বয়সে টেস্ট খেলেন। ৩০ বছর ধরে তিনি ক্রিকেট খেলেন।

লাইক কমেন্ট ও শেয়ার করে সাথেই থাকুন। দেখতে থাকুন আমাদের প্রোগ্রাম।


Download — ক্রিকেটের এই ৯টি রেকর্ড কি আজীবন অক্ষত থাকবে?

Download video
💬 Comments on the video
Author

এগুলো ছাড়াও আরও কিছু রেকর্ডস ভাঙা অসম্ভব। যেমনঃ
১. রোহিত শর্মার এক ইনিংসে ২৬৪ রান।
২. মোহাম্মদ আশরাফুলের সবচেয়ে কম বয়সে শতক।
৩. এবি ডি ভিলিয়ার্সের ৩১ বলে শতক।
৪. সোহাগ গাজীর একই টেস্টে হেট্রিক ও শতক।

Author — Osman Gani

Author

৩ ফরমেট এ বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান ছাড়া আর কেউ কখনো হবে না

Author — MN mhirab al hassan

Author

এক টেস্টে ইংল্যান্ড এর সাথে ১৯ উইকেট নিয়ে মেহেদী মিরাজ ১২৯ বছরের রেকর্ড ভাঙ্গছে ।

Author — MH Muhin

Author

আরে ভাই সয়েব আখতার তার নাম নেই কেনো মুসলমান বলে আজপযন্ত সোয়েব আখতার মত গতি বল করতে কেউ পারবে না

Author — sk Riyajl

Author

সাইয়দ আফ্রিদির রেকর্ড ছয় মারার কেউ ভাঙতে পারবে না এরা মুসলমান বলে এদের নাম নেই

Author — sk Riyajl

Author

বোলিং রেকর্ড কেউ ভাঙতে পারবে না।
কারণ এখন বেশির ভাগ ব্যাটিং পিচ।এবং বেশির ভাগ অফার ব্যাটম্যান দের।যেমন ফ্রী হিটঃ।আরো অনেক

Author — Nilkamal Das

Author

ভাই আরো আছে ইমরান খাঁনের খেলা ছেড়ে প্রধানমন্ত্রী হওয়া ।
তামিমের ভাংজ্ঞা হাতে দেশ কে জয় এনে দেয়া ।

Author — muhammad Tuhin

Author

সোহাগ গাজির, একই ম্যাচে শতক ও হ্যাট্রিক কেউ পারবেনা

Author — Tareq Khan

Author

স্যার ডোনাল্ড জর্জ ব্র্যাডম্যান এর রেকর্ড ছাড়া কোনো রেকর্ডই অক্ষত থাকবেনা।

Author — Sporsho Sporsho

Author

আবে এই তুই কোহলি কে চিনতে পারিনি কোহলি ভঙ্গে নতুন রেকর্ড করেবে

Author — Mozammel Hoque

Author

মোহাম্মদ আশরাফুল সর্ব কনিষ্ট সেন্সুরী তা ও আবার অভিষেক টেস্টে

Author — Salman Hasan

Author

গাধার বাচ্চা এডিবি র 31বলে 100 কই।এইটা ত সবার আগে প্রয়োজন ছিল।

Author — Tusher Alamin

Author

Virat will easily break Sachin's record

Author — Aritra's English Guide

Author

ভাই রেকর্ড তৈরি হয়ই রেকর্ড ভাঙার জন্য।
সব রেকর্ডই ভাঙা হবে, হয়তো আমরা তা নাও দেখতে পারি

Author — Xhon Alex Harrison 99

Author

অনিল কুম্বলে 10 উইকেট ডেনিস লিলির 10 উইকেট স্পর্শ করা যায় এটা ভাঙা যায় না

Author — AJIJUL LASKAR

Author

Birendra Shewag er 320 run testey record.
Yuvraj Singher 6 sixer record.
Mahendra Singh Dhonir Captain hower Por Back to Back 3te cup newoer record- 1)50-50 World Cup, 2) Champions Trophy, 3) ICC T-20 World Cup. Bengaler Dada Sourav Gangulir Record bollen na.

Author — Rahul Deb Banerjee

Author

Ki vai apni ki juboraj singh er kotha vule gelen

Author — Md Rana Sarker

Author

ভাই এবিডি এর ৩১ বলে সেঞ্চুরি করার রেকর্ড কে ভাংবে? আমার মনে হয় না কেউ ভাংতে পারবে।

Author — SMH Riko

Author

Ami jotodin nh khelbo totodin ei record amnei thakbe😹😹

Author — Shadow Bangladesh

Author

ইউভরাজ সিং এর ছয় বলে ছটা ছক্কা আর কারো জন্য মারা অসম্ভব

Author — Suchana ghosh